রবিবার ০৯ মে, ২০২১

একাধিকবার ধর্ষণের শিকার প্রতিবন্ধী নারী অন্তঃসত্ত্বা

বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ১৯:৩০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: বাকপ্রতিবন্ধী হওয়ায় দুই মাস সংসার করার পর স্বামী আর যোগাযোগ রাখেননি। বাবার বাড়িতেই থাকতেন তিনি। প্রতিবন্ধকতার সুযোগ নিয়ে ৩৫ বছর বয়সী ওই নারীকে একাধিকার ধর্ষণ করেছেন দুই যুবক। স্বামী পরিত্যাক্তা প্রতিবন্ধী ওই নারী এখন তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা। নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ঘটেছে এই ঘটনা। গত বুধবার (২১ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ভুক্তভোগী নারীর ভাই বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা করেছেন।

মামলায় আসামি করা হয়েছে ফতুল্লার পাগলা চিতাশাল এলাকার কুসুমবাগ ২নং গলির খালেক দেওয়ানের ছেলে খলিলুর রহমান (৪২) ও একই এলাকার বজলুর রহমানের ছেলে রাসেলকে (৪৩)। মামলার পর থেকেই আসামিরা পলাতক রয়েছেন বলে জানান ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মো. রকিবুজ্জামান। তিনি বলেন, বাকপ্রতিবন্ধকতার পাশাপাশি ভুক্তভোগী নারী মানসিকভাবেও কিছুটা অংসলগ্ন। আল্ট্রাসনোগ্রামের রিপোর্ট আমরা পেয়েছি। তারপরও নিয়ম অনুযায়ী নির্যাতনের শিকার নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হবে। আর আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বছর তিনেক পূর্বে ওই নারীর বিয়ে হয়। বিয়ের দুই মাস পর বাকপ্রতিবন্ধী ওই নারীকে বাবার বাড়িতে রেখে যান স্বামী। পরে আর যোগাযোগ করেননি। দুই আসামিই প্রতিবেশী হওয়াতে তাদের সাথে পরিচয় ছিল ভুক্তভোগী পরিবারের। গত ১৭ জানুয়ারি দুপুরে ভুক্তভোগী নারী আসামি খলিলুর রহমানের ফার্মেসিতে ওষুধ আনতে যান। সে সময় খলিলুর ওই নারীকে ফার্মেসির পেছনে রোগীদের শয্যায় (বেড) নিয়ে ধর্ষণ করে। একইভাবে ২০ জানুয়ারিও ওই নারীকে ধর্ষণ করে খলিলুর। এরপরও নানা প্রলোভনে একাধিকবার খলিলুর তাকে ধর্ষণ করে বলে মামলায় উল্লেখ রয়েছে।

মামলায় বাদী আরও বলেন, গত ৩১ জানুয়ারি সন্ধ্যায় তার বোন ফুপুর বাসায় যাচ্ছিল। সে সময় তার বোনকে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে প্রতিবেশী রাসেল। বাকপ্রতিবন্ধী ওই নারী এই ঘটনা বাড়ির কাউকে জানাননি। গত কয়েকদিন পেটব্যাথাসহ নানা শারীরিক অসুস্থতাবোধ করাতে গত ১১ এপ্রিল স্থানীয় একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে আল্ট্রাসনোগ্রাম করে জানা যায় ওই নারী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

মামলার বাদী ভুক্তভোগী নারীর ছোট ভাই মুঠোফোনে বলেন, আল্ট্রাসনোগ্রামে অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি জানার পর প্রতিবন্ধীদের ইঙ্গিত ও সংকেত পারদর্শী একজনের মাধ্যমে পুরো ঘটনা বোনের কাছ থেকে জানতে পারি। আসামিদের নাম-ঠিকানা শনাক্ত করি। পরে আসামিরা গত ১৩ এপ্রিল মিমাংসার প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়াতে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখায় আসামিরা।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ