২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

প্রকাশিত: ১৯:৩৩, ৬ মার্চ ২০২৩

আপডেট: ১৯:৩৩, ৬ মার্চ ২০২৩

ঘাট ইজারাদারের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি ও লুটপাটের অভিযোগ

ঘাট ইজারাদারের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি ও লুটপাটের অভিযোগ

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার লঞ্চঘাটে পটুয়াখালী থেকে আসা এক নারীর শ্লীলতাহানি সহ দুই যাত্রীকে মারধর করে স্বর্ণালংকার, মোবাইল ও হাঁস-মুরগি ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে ঘাট ইজারাদারের বিরুদ্ধে।

সোমবার (৬ মার্চ) সকাল আটটায় ফতুল্লা মডেল থানার লঞ্চঘাটস্থ টোল আদায়কারীর ঘরের সামনে ঘটনাটি ঘটেছে।

এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার ঐ নারী লাবিনা (৩১) বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় রিপন (৪২), প্রিতম (৩৬) সহ টোল আাদায়কারী অজ্ঞাতনামা আরো ৭-৮ জনকে আসামী করে সোমবার দুপুরে ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বাদীর অভিযোগ, গ্রামের বাড়ী পটুয়াখালী থেকে বাদী তার স্বামী আরিফ ফরাজি (৪০) ও ছোট ভাই মাসুম বিল্লাহ (১৯) লঞ্চযোগে সোমবার সকাল আটটার দিকে ফতুল্লা লঞ্চঘাটে এসে নামে। তারা ঘাট দিয়ে আসার সময় টোল আদায়কারীরা তাদের সাথে নিয়ে আসা হাঁস-মুরগির জন্য টাকা দাবী করে। তখন বাদীর ভাই টোল আদায়কারীকে ২শত টাকা প্রদান করে। টোল আদায়কারীরা আরো ৩শত টাকা দাবী করে। এ নিয়ে বাদীর ভাই মাসুম বিল্লাহ ও স্বামী আরিফ ফরাজির সাথে টোল আদায়কারীদের কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রিপনের নির্দেশে প্রিতম সহ অজ্ঞাতনামা আরো ৭-৮ জন বাদীর স্বামী ও ভাইকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় বাদী স্বামী ও ভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে হামালকারীরা বাদীকে মারধর করে তার জামা-কাপড় ছিড়ে তার শ্লীলতাহানি করে। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা বাদীর গলায় থাকা ৯ আনা ওজনের স্বর্নের চেইন এবং ভাইয়ের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এবং সাথে নিয়ে আসা ৮ টি দেশী মুরগি ও ২ টি হাঁস রেখে দিয়ে সাথে থাকা জামা -কাপড়ের ব্যাগ নদীতে ফেলে দেয় অভিযুক্তরা।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ইনচার্জ শেখ রিজাউল হক দিপু জানায়, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

সর্বশেষ

জনপ্রিয়