মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি, ২০২১

জাহাঙ্গীর আলমকে অব্যাহতি, মানা হয়নি আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র

মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ২০:৫০

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তবে অব্যাহতি দেওয়ার ক্ষেত্রে দলের গঠনতন্ত্র মানা হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী কোনো কর্মকর্তা বা সদস্যকে অব্যাহতি দেওয়ার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট শাখার সাধারণ সভায় দুই-তৃতীয়াংশ সদস্যের মত, উর্ধ্বতন শাখার অনুমোদনের প্রয়োজন রয়েছে। তবে জাহাঙ্গীর আলমের ক্ষেত্রে তার কিছুই মানা হয়নি। এ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে।

আওয়ামী লীগের দলীয় গঠনতন্ত্রের ৪৭ নম্বর অনুচ্ছেদের ৯ নম্বর ধারায় বলা হয়েছে, সংগঠনের যেকোনো শাখা তাহার যেকোনো কর্মকর্তা বা সদস্যকে দলের স্বার্থ, আদর্শ, শৃঙ্খলা তথা গঠনতন্ত্র ও ঘোষণাপত্র পরিপন্থী কর্মকান্ডের জন্য স্ব-স্ব পদ বা দায়িত্ব হইতে অব্যাহতি প্রদান করিতে পারিবে। তবে এ ব্যাপারে উর্ধ্বতন শাখার অনুমোদন প্রয়োজন হইবে এবং এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট শাখার সাধারণ সভায় দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যের মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গৃহীত হইবে। উর্ধ্বতন শাখা পরবর্তী এক মাসের মধ্যে তাহার সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট শাখাকে জানাইবে, অন্যথায় গৃহীত সিদ্ধান্তের সহিত উর্ধ্বতন শাখা একমত বলিয়া গণ্য হইবে।

দলীয় গঠনতন্ত্র মেনে জাহাঙ্গীর আলমকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে কিনা জানতে চাইলে মুঠোফোনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল মঙ্গলবার বিকেলে প্রেস নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘চিঠিতেই সবকিছু উল্লেখ করা হয়েছে। অব্যাহতি দেওয়ার এখতিয়ার আমাদের আছে। বিস্তারিত জানতে চাইলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির সাথে কথা বললে সব জানতে পারবেন।’ এই বলে কলটি তিনি কেটে দেন।

এদিকে বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের মুঠোফোনের নম্বরে একাধিকবার কল করলেও তিনি কলটি রিসিভ করেননি। পরে সন্ধ্যার তার মুঠোফোনের নম্বরে পুনরায় যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) দলীয় প্যাডে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই এবং সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ মো. বাদলের স্বাক্ষরিত অব্যাহতিপত্রে বলা হয়েছ, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে থেকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল ‘আওয়ামী লীগকে স্বাধীনতা বিরোধী দল’ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে বক্তব্য রাখার অপরাধে জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। গত ২১ নভেম্বর জাহাঙ্গীর আলমের দেওয়া বক্তব্য ‘ক্ষমার অযোগ্য’ বলেও উল্লেখ করা হয়েছে ওই চিঠিতে। যদিও এই বক্তব্যকে ‘উত্তেজনাবশত মুখ ফসকে অনিচ্ছাকৃত ভুল শব্দের উচ্চারণ’ দাবি করেছেন জাহাঙ্গীর আলম। এর জন্য গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি। কিন্তু এই ঘটনার মাত্র চারদিনের মাথায় তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

অব্যাহতি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জাহাঙ্গীর আলম প্রেস নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘জেলা আওয়ামী লীগের একজন যুগ্ম সম্পাদককে অব্যাহতি দেওয়ার এখতিয়ার কেবল দলীয় প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনার। তাছাড়া অব্যাহতি দেওয়ার পূর্বে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিবে। আমার জবাব সঙ্গতিপূর্ণ না হলে দলীয় নেতৃবৃন্দের মতামত অনুযায়ী কেন্দ্রে প্রস্তাব পাঠাবে। প্রস্তাব অনুযায়ী কেন্দ্র আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে। এক্ষেত্রে সেই নিয়ম মানা হয়নি।’

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ