বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর, ২০২১

তাজরিন ফ্যাশনে নিহতদের প্রতি জিটিইউসির শ্রদ্ধা

বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১, ১৮:৫৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: আশুলিয়ার তাজরিন ফ্যাশনে আগুনে পুড়ে নিহত শ্রমিকদের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র (জিটিইউসি)।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ৯টায় কমিটির পক্ষ থেকে নিহতদের সমাধিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

এসময় সাদেকুর রহমান শামীমের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় জিটিইউসির নেতা দুলাল সাহা, জেলা জিটিইউসির সভাপতি এম এ শাহীন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, সহসভাপতি আবদুস সালাম বাবুল, সদস্য মুস্তাকিম ও নুর ইসলাম আক্তার প্রমুখ।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এক স্মরণসভায় বক্তারা বলেন, তাজরিন ফ্যাশনে আগুনে পুড়িয়ে ১১৪জন শ্রমিককে হত্যা করা হয়েছে। আজো খুনি মালিক দেলোয়ার হোসেনসহ দোষীদের কোনো বিচার হয়নি। নিহত-আহত শ্রমিক পরিবার উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ পায়নি। যা পেয়েছে নাম মাত্র অর্থ দেয়া হয়েছে। আহত শ্রমিকের চিকিৎসা সম্পন্ন করা ও বিকলাঙ্গদের পুনর্বাসন করা হয়নি। তবে সরকারের কাছ থেকে ৫৫ জন নিহত শ্রমিকের প্রাপ্তি হয়েছে জুরাইন কবরস্থানে এক খন্ড জমি। বিচারহীনতার কারণে একের পর এক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে। তাজরিনের পর রানা প্লাজায় ১১৩৪ জন ও গত জুলাই মাসে রূপগঞ্জের হাসেম ফুডে ৫৪ জন শ্রমিকের প্রাণহানির ঘটনা সহ কয়েক দশকে অসংখ্য শ্রমিকের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। আজ অবধি কোন একটি শ্রমিক হত্যার বিচার হয়নি। গ্রেফতার হওয়া অপরাধীরা জামিনে মুক্তি পেয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। মুনাফাখোর মালিকরা সরকারের ও বিজিএমইএ, বিকেএমইএ`র আশ্রয় প্রশ্রয় পেয়ে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তারা আইন কানুনের তোয়াক্কা না করে নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে শ্রমিকদের কাজ করতে বাধ্য করে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছে। যখন কোনো দুর্ঘটনা ঘটে তখন দেশ জুড়ে আলোচনা সমালোচনা নিয়ে কিছু দিন তোলপাড় হয় কিন্তু দায়ীদের কোন শাস্তি হয় না। প্রচলিত আইন যুগোপযোগী করে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার বিধান করাসহ কর্মক্ষেত্রে শ্রমিকদের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। নিহত শ্রমিক পরিবারকে আন্তর্জাতিক মান অনুসারে ক্ষতিপূরণ প্রদান ও আহতদের চিকিৎসা সম্পন্ন করতে হবে। যারা বিকলাঙ্গ হয়েছে তাদের পুর্নবাসন করতে হবে।

সব খবর
সংগঠন সংবাদ বিভাগের সর্বশেষ