শনিবার ২৮ নভেম্বর, ২০২০

নারায়ণগঞ্জে ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে জশনে জুলুস উদযাপিত

শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৯:২৯

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভার্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে নগরীতে জশনে জুলুস মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) সকালে জশনে জুলুস ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন কমিটি নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে জশনে জুলুস র‌্যালিটি বের হয়। পরে র‌্যালিটি চাষাড়া ও মেট্রো সিনেমা হল হয়ে কালিরবাজার ও টানবাজার হয়ে নিতাইগঞ্জে এসে শেষ হয়। এ সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা কয়েক হাজার নবীপ্রেমী ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা জশনে জুলুসে মিলিত হন।

মিছিল শেষে নগর ভবনের সামনের সড়কে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। মিলাদ মাহফিলে জশনে জুলুস ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন জেলা কমিটির সভাপতি জামাল উদ্দিন মৃধার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের সভাপতি আল্লামা সৈয়দ বাহাদুর শাহ মোজাদ্দেদী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সেলিম রেজা।

আরো উপস্থিত ছিলেন সৈয়দ আলমগীর শাহ মোজাদ্দেদী, সৈয়দ জাহের শাহ মোজাদ্দেদী, জশনে জুলুস ঈদে মিলাদুন্নবী উদযাপন জেলা কমিটির উপদেষ্টা রহমতুল্লাহ খন্দকার সেন্টু, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাদাত হােসেন শ্যামল, বাংলাদেশ হিজবুর রাসূল (দঃ) কমিটি নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, মহানবী (সা.) কে এই দুনিয়ার বুকে প্রেরণ করা হয়েছে মানবতার মুক্তির দূত হিসেবে। প্রিয় নবী (সা.) এই দুনিয়ার বুকে আইয়ামে জাহিলিয়াতের যুগে এসে সারাবিশ্বে শান্তি, ন্যায় ও সত্যকে প্রকাশ করেছেন এবং তার আদর্শকে কেয়ামত পর্যন্ত অনুকরণীয় হিসেবে প্রতিষ্ঠা করে গেছেন যা বিধর্মীরাও পর্যন্ত স্বীকার করে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখ ও পরিতাপের বিষয়, আজ এই একুশ শতকে এসেও আমরা দেখতে পাচ্ছি ফ্রান্স থেকে রাসূলে পাক (সা.) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশসহ ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধে একের পর এক কটুক্তি করে ইসলামকে হেয় করার অপচেষ্টা ও বিশ্ব শান্তিকে বিনষ্ট করার যড়যন্ত্র করছে। রাসূলেপাক সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর শানে কটুক্তিকারীদের আর কোন ছাড় নয়। প্রয়োজনে কারবালার হাতিয়ার নিয়ে নামবো তবুও নবীর শানে কোনো বেয়াদবী বরদাস্ত করবোনা।

বক্তারা আরো বলেন, বাংলাদেশে প্রতিনিয়ত আইন শৃঙ্খলার অবনতি, নারী শিশুর নিরাপত্তার অভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। আজ সামাজিক অবক্ষয় চূড়ান্ত পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যার একমাত্র কারণ আমরা মহানবী (সা.) এর আদর্শ থেকে বিচ্যুতি হয়ে গিয়েছি। কুরআন সুন্নাহের আইন বাস্তবায়ন হলে আজ এই সমাজের এই অধপতন হতোনা। যেই দেশে রাষ্ট্রকে যারা নিরাপত্তা প্রদান করে তাদের নিরাপত্তা নাই সেখানে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করাই দূরহ। আজকের এই সমাবেশ থেকে সরকারের প্রতি দাবী জানাই আইনের যথাযথ প্রয়োগ ও দ্রুত কার্যকর করে বাস্তবায়ন করতে হবে।

সব খবর
ধর্ম ও নৈতিকতা বিভাগের সর্বশেষ