বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর, ২০২১

ফতুল্লায় ২ কিশোর মারধরের আসামিরা অধরা

বুধবার, ২৪ নভেম্বর ২০২১, ২০:০৩

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: সদর উপজেলার ফতুল্লায় দুই কিশোরকে মারধরের ঘটনার ২০ দিন পেরিয়ে গেলেও অগ্রগতি নেই। এ ঘটনায় জড়িতরা এখনও অধরা। এতে হতাশ ভুক্তভোগীর পরিবার। তারা এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন। তবে পুলিশ বলছে, তারা বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখবেন।

জানা যায়, গত ৫ নভেম্বর দেওভোগ পূর্বনগর এলাকায় কিশোর গ্যাং এর দুই গ্রুপের সংঘর্ষের মধ্যে পরে মারধরের শিকার হন স্থানীয় দুই কিশোর। যার মধ্যে গুরুতর আহত হয় মো. সাব্বির। পরদিন আহত সাব্বিরের মামা বাদী হয়ে শাওন ও স্বপনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৭-৮ জন বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি খোকন সরদার বলেন, `ওইদিন যে ঘটনাটা ঘটেছে তা খুবই অনাকাঙ্ক্ষিত ও দুঃখজনক। কারণ গুরুতর আহত কিশোর সাব্বির খুবই ভালো ও ভদ্র ছেলে। আমরা বিভিন্ন সময় এলাকায় কিশোরদের মধ্যে সংঘর্ষ রোধে কাজ করার চেষ্টা করেছি কিন্তু সমস্যা হচ্ছে যে ছেলেগুলো মারামারি করে তাদের অধিকাংশ অন্য মহল্লার। আর ওরাই মূলত ঝামেলাগুলো করে।`

ঘটনার ২০ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও কোনো বিচার না পেয়ে হতাশ ভুক্তভোগীর পরিবার। আহত সাব্বিরের মা আক্ষেপ করে বলেন, `আমার ছেলে গুরুতর আহত অবস্থায় ২০দিন যাবৎ বিছানায় পরে আছে। ওকে এ অবস্থায় দেখতে খুব কষ্ট হয়। অন্যদিকে যারা আমার ছেলের এ অবস্থা করছে তারা দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছে। কিন্তু প্রশাসন কিছুই করছে। একজনকে গ্রেফতার করে আবার ছেড়ে দিয়েছে। আমার শান্ত, ভদ্র ছেলের এত কষ্ট প্রাপ্য ছিল না।`

অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক এস এম শামীম জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযোগের ভিত্তিতে শাওন নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে শাওন এ ঘটনার পিছনে থাকা তিন জনের নাম প্রকাশ করে। তারা হলো, মাসদাইর এলাকার কায়েস, আপন ও আমিন। তবে তাদের গ্রেফতার বা আটক করা হয়নি।

এ বিষয়ে অগ্রগতি নেই কেন এমন প্রশ্নের উত্তরে (এসআই) শামীম বলেন, `গত ৫ দিন যাবৎ আমি অসুস্থ। বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসাধীন আছি। মূলত আমার অসুস্থতার কারণে এ বিষয়ে তেমন কোনো অগ্রগতি নেই।`

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাকিবুজ্জামান বলেন, `এ ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা অসুস্থ। তাই এ ঘটনার অগ্রগতি সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য আমার কাছে নেই। আমি খোঁজ নিচ্ছি। ঘটনাটি আমরা গুরুত্বের সঙ্গে দেখবো।`

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ