শুক্রবার ২৩ এপ্রিল, ২০২১

‘মসজিদের মিম্বরকে রাজনৈতিক মঞ্চ বানিয়েছেন’ আউয়ালকে মোস্তফা আজহারী

বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৮:০৭

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা হেফাজতে ইসলামের আমীর ও ডিআইটি মসজিদের খতিব মাওলানা আব্দুল আউয়ালকে উদ্দেশ্য করে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের শায়খ আব্দুল মোস্তফা রাহিম আজহারী বলেছেন, ‘কিছু কিছু আলেম আছেন যাদের কারণে গোটা আলেম সমাজকে লজ্জিত হতে হয়। একজন ব্যক্তিকে মিথ্যাবাদী হওয়ার জন্য এতটুকুই যথেষ্ট। যাচাই বাছাই ছাড়াই যা শোনে তাই বলে। আর এ মিথ্যাবাদীরা যদি মসজিদের মিম্বরে বসে মিথ্যা কথা ছড়ায় তাহলে সমাজে ফিতনা-ফাসাদ লেগেই থাকবে। আজকে মসজিদের মিম্বরকে তারা রাজনৈতিক মঞ্চ বানিয়েছে। আর মসজিদগুলোকে বানিয়েছে রাজনৈতিক কার্যালয়।’

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি সদর উপজেলার গোগনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আশেকানে মোস্তফা সংগঠনের আয়োজিত মাহফিলে বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘আজকে মসজিদের মিম্বারে বসে রক্তের বন্যা বইয়ে দিবে এমন কিছু জঙ্গি মুসলমান আছে। আলেম সেজে কবর রচনা করে দিবেন, শীতলক্ষ্যার পানিতে ডুবিয়ে মারবেন। এ গুন্ডামি কোথায় থেকে শিখেছেন? তারা কোনোদিন মৌলভী বা মাওলানা হতে পারেনি, তারা হলেন এক একটা গুন্ডা। গুন্ডামি করার হলে গুন্ডামি করেন কিন্তু আপনি কেন ইসলামের লেবাস গায়ে দিয়ে সমাজে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করছেন।’

ইসলামী এই বক্তা বলেন, ‘জিহাদী সাহেবের মত একজন নিরাপরাধ ব্যক্তিকে যখন কারাগারে প্রেরণ করা হলো আমরা তখন তার মুক্তির আন্দোলনের জন্য নারায়ণগঞ্জে একটা প্রোগ্রাম করতে চেয়েছিলাম। আমাদের সাথে কারও ব্যক্তিগত রেষারেষি নাই, রাজনৈতিক দ্বন্দ নাই বরং একজন নিরাপরাধ ব্যক্তিকে কারাগারে প্রেরণ করায় প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দিয়েছিলাম। তখন মসজিদের মিম্বরে দাঁড়িয়ে বললেন, প্রয়োজনে ১০০টি লাশ পড়বে তবু তাদের সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না।’

আব্দুল মোস্তফা রাহিম আজহারী বলেন, ‘আমাদেরকে মাজার পূজারি, বেদআতি অনেক অপবাদ দিয়েছেন। যে আমির সাহেবের জন্য জিহাদী সাহেবকে মিথ্যা মামলা দিলো, সেই আমিরকে তো তারাই হত্যা করেছে। যদি নবীজির হাদিস মানেন তাহেল আরেকজনকে মুশরিক, মাজার পূজারি ও কাফের বলার আগে নিজে কতটুকু ঈমানদার তা যাচাই-বাছাই করে নিবেন। কিছু মানুষ আছে যারা অনেক কথা বলে, কথার কোনো শেষ নাই। এদেরকে আমরা সহজে চিনতে পারি ও এদেরকে বলে বাচাল। আর যে ব্যক্তি বাচাল হয় মানুষের কাছে তার কোন গ্রহণযোগ্যতা থাকে না।’

সব খবর
নগর বিভাগের সর্বশেষ