সোমবার ২১ জুন, ২০২১

সোনারগাঁয়ে এসকোয়ার গার্মেন্টসের শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বৃহস্পতিবার, ১০ জুন ২০২১, ১৯:১৬

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: নির্ধারিত তারিখের মধ্যে বেতন পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে সোনারগাঁয়ের কাচঁপুরের এসকোয়ার নীট কম্পোজিট লিমিটেড গার্মেন্টেসের শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকাল সাড়ে ৮ টা থেকে মে মাসের বেতন পরিশোধের দাবিতে গার্মেন্টসটির ফটকের সামনে ঢাকা সিলেট সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে শ্রমিকরা। এই বিক্ষোভ চলে সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত।

বিক্ষোভের খবর পেয়ে জলকামানসহ উপস্থিত হয় নারায়ণগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৪। এ সময় অবরোধ সরাতে পুলিশ বিক্ষোভরত শ্রমিকদের উপর লাঠিচার্জ এবং রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। পুলিশের লাঠি চার্জ ও রাবার বুলেটে কিছু শ্রমিক গুরুতর আহত হয়।

শ্রমিকরা জানায়, গত মাসের বকেয়া বেতন এখনো পরিশোধ করা হয়নি। তাদের বেতন মাসের ৪ থেকে ৮ তারিখের মধ্যে পরিশোধ করা হয়। কিন্তু এবার সেটা করা হয়নি। তাদেরকে বলা হয়েছে ২০ তারিখে বেতন দেয়া হবে। কিন্তু শ্রমিকদের ১০ তারিখের মধ্যে বাড়ি ভাড়া, মুদি দোকানের বকেয়া পরিশোধ করতে হয়।

শ্রমিকদের অভিযোগ, শান্তিপূর্ণভাবে বেতনের দাবীতে করা আন্দোলনে পুলিশ লাঠিচার্জ ও গুলি চালায়। এতে কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়েছে।

পরে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শিল্প পুলিশ আন্দোলনরত শ্রমিকদের জানায় মালিকপক্ষের সাথে আমাদের কথা হয়েছে। তারা বলেছে, আজকের মধ্যেই বেতন দিয়ে দেওয়া হবে। শ্রমিকদের আশ্বস্ত করার পর তারা আন্দোলন আজকের স্থগিত করে।

এ বিষয়ে এসকোয়ার গার্মেন্টেসের সিনিয়র ম্যানেজার নূরে আলম জানান, আমাদের এখানে প্রায় ৮ হাজার শ্রমিক কাজ করে। প্রতি মাসের ৪ থেকে ৮ তারিখের মধ্যে আমরা শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করে দেই। এখন করোনার কারণে কোম্পানীর অবস্থা ভালো না তাই এ মাসে একটু দেরী হয়ে গেছে। আজকেই তাদের বেতন দিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা ছিলো। কিন্তু শ্রমিকরা হয়তো ভেবেছিলো আজকে যদি বেতন না পায় তাহলে তাদের বেতন হয়ত রবিবার পাবে। কারণ শুক্র, শনিবার ব্যাংক বন্ধ থাকে। তাই তারা একটু জড়ো হয়েছিলো। বাইরের কারো ইন্ধনে এ ঘটনা ঘটেছে। আমাদের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। ভাঙচুর কতটুকু হয়েছে তা তদন্ত শেষে জানাতে পারবো। আমরা আজকের মধ্যে সব শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করে দিবো। এত শ্রমিকের ভীড়ে কেউ আহত হয়েছে কিনা তা জানি না এবং এরকম কিছু আমাদের নজরে পড়েনি।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশ-৪ এর পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, গত মাসের বেতন এই মাসের ৭-৮ তারিখে দেওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু তাদের কিছু সমস্যা থাকায় তারা দিতে পারে নাই। তাই শ্রমিকরা ক্ষুব্ধ হয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শিল্প পুলিশ লাঠিচার্জ চালিয়েছে ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে।

সব খবর
নগরের বাইরে বিভাগের সর্বশেষ