২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত: ২১:২৭, ১ ডিসেম্বর ২০২৩

আচরণবিধি মানছেন না প্রার্থীরা 

আচরণবিধি মানছেন না প্রার্থীরা 

আগামী ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া নারায়ণগঞ্জের পাঁচটি আসনের প্রার্থীদের অনেকেই মানছেন না নির্বাচনী আচরণবিধি। ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য থেকে শুরু করে স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও ভাঙছেন আচরণবিধি।

গত বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষদিন। এখনও মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষ হয়নি।

নির্বাচনী বিধিমালা অনুযায়ী, চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণার পর প্রতীক দেওয়া হবে। এরপর শুরু হবে প্রচার-প্রচারণা। এর আগে কোন প্রার্থীর পক্ষে প্রকাশ্যে ভোট প্রার্থনা, মিছিল, শোডাউন করা যাবে না।

তবে শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় নৌকার পক্ষে মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। তারা এই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শামীম ওসমানের ছবি সম্বলিত ব্যানার নিয়ে তার পক্ষে ভোট চেয়ে মিছিলে স্লোগান দেন। ব্যানারে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।

এদিকে, বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘণ করেছেন দুই সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের এক স্বতন্ত্র প্রার্থী। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় তারা অনুসারী দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে মিছিল ও শোডাউন করেছেন।
এদিকে, আওয়ামী লীগের এক সংসদ সদস্যের সাথে মিছিলে দেখা গেছে উপজেলা প্রকৌশলীকে।

নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা অনুযায়ী কোন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় মিছিল বা শোডাউন করতে পারেন না৷ এছাড়া বিধিমালার ১৪ এর ১ ধারা অনুযায়ী কোন সরকারি কর্মকর্তা কোন প্রার্থীর নির্বাচনী কর্মকাণ্ডে যুক্ত হতে পারবেন না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু আড়াইহাজার উপজেলা কার্যালয়ে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইশতিয়াক আহমেদের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন৷
মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আগে তার কয়েকশ’ অনুসারী উপজেলা চত্বরে মিছিল করে৷ পরে অনুসারী অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী নিয়ে তার মনোনয়নপত্র জমা দেন। এ সময় আড়াইহাজার উপজেলা প্রকৌশলী মো. আরিফুর রহমান তাঁর নেতাকর্মীদের সঙ্গে ছিলেন।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, সংসদ সদস্য মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় উপজেলা প্রকৌশলী আরিফুর রহমান তাঁর পেছন পেছন হেঁটে এসে দাঁড়াচ্ছেন। যদিও আরিফুর রহমানের দাবি তিনি একটি দাপ্তরিক কাজে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়েছিলেন৷

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইউএনও ইশতিয়াক আহমেদ৷

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় নেতা-কর্মীদের নিয়ে মিছিল করে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী লিয়াকত হোসেন ওরফে খোকা।

দুপুরে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার আগে তিনি কয়েক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে বাদ্যযন্ত্রসহ মিছিল করেন। মোগরাপাড়া চৌরাস্তা থেকে শুরু হয়ে মিছিলটি উপজেলা পরিষদে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় মোগড়াপাড়া-বৈদ্যেরবাজার সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে অন্তত ১৭ জন নেতাকর্মী নিয়ে লিয়াকত হোসেন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ঢুকে মনোনয়নপত্র জমা দেন৷

রূপগঞ্জে আচরণবিধি ভঙ্গ করে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় বিপুল সংখ্যক অনুসারীদের নিয়ে মিছিল করেছেন নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ্জাহান ভূঁইয়া৷ তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক৷

তিনি কয়েকদিন আগে নির্বাচনে অংশ নিতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন৷

তিনিও দুপুরে রূপগঞ্জ উপজেলা কার্যালয়ে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ফয়সাল হকের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় সঙ্গে অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী কার্যালয়ে প্রবেশ করেন।

তার আগে উপজেলার মঠেরঘাট থেকে উপজেলা পরিষদ পর্যন্ত হাজারো নেতাকর্মী নিয়ে মিছিল করেন শাহজাহান ভূঁইয়া। এ সময় তার অনুসারীরা বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে তার পক্ষে শ্লোগান দেয়। মিছিলের কারণে উপজেলা কার্যালয়ের সামনের সড়কটিতে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়৷
যোগাযোগ করা হলে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, আচরণবিধি লঙ্ঘণের ব্যাপারে কারও অভিযোগ পাননি৷ তবে এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে সত্যতা পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷

একইদিন ঢাকায় দলীয় এক প্রার্থীর পক্ষে ঢাকা বিভাগী কমিশনারের কার্যালয়ে (রিটার্নি অফিসার) মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় মিছিল করেন তৃণমূল বিএনপির মহাসচিব তৈমুর আলম খন্দকার। মিছিলে তার দলীয় প্রতীক ‘সোনালী আঁশ’ এ ভোট দেওয়ার অনুরোধ জানানোর ব্যাপারটিও উল্লেখ ছিল। তৈমুর নারায়ণগঞ্জ-১ আসন থেকে দলীয় মনোনয়নে সংসদ সদস্য প্রার্থী হয়েছেন।

এদিকে, গত ২৯ নভেম্বর দুপুরে নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য প্রার্থী বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক) কয়েকশ’ নেতা-কর্মীর মিছিল নিয়ে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন। তার ওই মিছিলে কাঞ্চন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল কলির গানম্যান প্রকাশ্যে তার শটগান প্রদর্শন করে অংশ নেন।

পরে বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে অস্ত্রটি জব্দ করে পুলিশ। পরে ৩০ নভেম্বর মন্ত্রী গাজীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠান নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির সভাপতির দায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র সহকারী জজ শেখ আনিসুজ্জামান।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়