১৬ এপ্রিল ২০২৪

প্রকাশিত: ১৮:২২, ১২ মার্চ ২০২৩

আপডেট: ১৮:২২, ১২ মার্চ ২০২৩

ফতুল্লা ফেব্রিকস গার্মেন্টস শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

ফতুল্লা ফেব্রিকস গার্মেন্টস শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: ২০১৮ সালে সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি ৮ হাজার টাকা বাস্তবায়ন, বকেয়া মজুরি পরিশোধ, শ্রম আইন অনুযায়ী ৭ কর্মদিবসে বেতন পরিশোধসহ ১৩ দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ফতুল্লা ফেব্রিকস গার্মেন্টস শ্রমিকরা। রবিবার (১২ মার্চ) দুপুর ১২ টা থেকে ২ টা পর্যন্ত কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে তারা।

অবস্থান কর্মসূচি পালন কালে ফতুল্লা ফেব্রিকস কারখানার শ্রমিক রায়হানের সভাপতিত্বে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শরীফ, কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল শাখার সহসভাপতি আনোয়ার খান, কারখানার শ্রমিক মাসুদ রানা, সালমা।

নেতৃবৃন্দ বলেন, গার্মেন্টস মালিক কর্তৃপক্ষ সাড়ে চার বছর আগে বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত নিম্নতম মজুরি ৮০০০ টাকা এখনো বাস্তবায়ন করে নাই। মালিক শ্রম আইন মানে না। আইন অনুযায়ী সাত কর্মদিবসে বেতন পরিশোধ করে না। সবেতন মাতৃত্বকালীন সুবিধা নারী শ্রমিকদের প্রদান করে না। অর্জিত ছুটির টাকা পরিশোধ করে না। কারখানার সকল শ্রমিকদের নিয়োগপত্র, পরিচয়পত্র, সার্ভিস বুক প্রদান করে না।
নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, মালিক প্রতি মাসে ২০/২২ তারিখের আগে বেতন দেয় না। ফলে বাসার ভাড়া ও বাকি দোকানের টাকা সময় মতো না দিতে পারায় প্রতি মাসে শ্রমিকদের গালাগাল শুনতে হয়। মালিক কর্তৃপক্ষ আইন লঙ্ঘন করে কথায় কথায় শ্রমিক ছাঁটাই করে। যখন তখন শ্রমিকদের মারধর করে। শ্রমিকরা তাদের সংকট নিরসনে ১৩ দফা দাবি দিয়েছে এবং নিয়ম মতো কলকারখানা পরিদর্শন, বিকেএমইএ, শিল্প পুলিশে অভিযোগ দিয়েছে। এখন পর্যন্ত সমস্যার সমাধান হয়নি। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে শ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত ১৩ দফা দাবি মেনে নেয়ার আহবান জানান।

পরে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের সহকারী মহাপরিচালক ওমর ফারুক অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা ২ টায় কর্মসূচি প্রত্যাহার করে।

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

সর্বশেষ

জনপ্রিয়