১৬ জুন ২০২৪

প্রেস নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত: ২০:২৭, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩

দ্বিতীয় দিনেও ফকির নিটওয়্যারের শ্রমিকদের বিক্ষোভ

দ্বিতীয় দিনেও ফকির নিটওয়্যারের শ্রমিকদের বিক্ষোভ

সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী প্রোডাকশন শ্রমিকদের পিসরেট ৫৬ শতাংশ বৃদ্ধির দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো সমাবেশ ও শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ফকির নিটওয়্যার লিমিটেডের শ্রমিকরা। সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) সকাল ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে সমাবেশ ও শহরে বিক্ষোভ মিছিল করে তারা। 

কারখানার শ্রমিক সাজুর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শরীফ, সহসভাপতি হাসনাত কবীর, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সভাপতি রুহুল আমিন সোহাগ, তল্লা আঞ্চলিক শাখার সংগঠক কামাল হোসেন, কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল শাখার সহসভাপতি আনোয়ার খান প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকার গার্মেন্টস শ্রমিকদের নতুন মজুরি কাঠামো ঘোষণা করেছে। নতুন কাঠামোতে শ্রমিকদের ৫৬% মজুরি বৃদ্ধি করা হয়েছে। যা ডিসেম্বর মাস থেকে কার্যকর হবে। নারায়ণগঞ্জে অধিকাংশই নিট গার্মেন্টস। এখানে বিরাট অংশ প্রোডাকশন শ্রমিক। এরা সাপ্তাহিক বিল পায়। ফকির নিটওয়্যারে প্রোডাকশন শ্রমিকদের মধ্যে নতুন মজুরি কাঠামো বাস্তবায়ন হয়নি। শ্রমিকরা এ বিষয়ে মালিক কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলতে গেলে তারা নতুন মজুরি কাঠামো বাস্তবায়নে অস্বীকৃতি জানায় এবং সরকারি ঘোষণা না মেনে নাম মাত্র পিসরেট বৃদ্ধির কথা বলে। না মানলে তাদের চাকরি চলে যাওয়ার হুমকি প্রদান করে। দেশের এমন একটি প্রতিষ্ঠিত কারখানায় আইন লঙ্ঘন করা হচ্ছে অথচ প্রশাসন, কলকারখানা পরিদর্শন অধিদপ্তর, বিকেএমইএ নির্বিকার। শ্রমিকরা আন্দোলন করলে শিল্প পুলিশ লাঠিপেটা করে, গুলি বর্ষণ করে নিরস্ত্র শ্রমিকের উপর। অথচ মালিকরা যখন আইন লঙ্ঘন করছে সেখানে শিল্প পুলিশের কোন ভূমিকা নেই। 

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সরকার ঘোষিত ৫৬ শতাংশ মজুরি বৃদ্ধি প্রোডাকশন শ্রমিকদের ক্ষেত্রে বাস্তবায়নসহ ৯ দফা দাবি মেনে নেওয়ার আহবান জানান। মঙ্গলবার বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমানের কাছে স্মারকলিপি দেয়ার কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।  

সর্বশেষ

জনপ্রিয়