মঙ্গলবার ০২ মার্চ, ২০২১

পদের জন্য স্ত্রী ও সন্তানকে অস্বীকার!

মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৪৮

প্রেস নারায়ণগঞ্জ.কম

প্রেস নারায়ণগঞ্জ: জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের গঠনতন্ত্র বলছে, বিবাহিতদের ছাত্রদলের কমিটিতে পদ পাওয়ার সুযোগ নেই। অথচ সাড়ে তিন বছরের এক সন্তানের জনক আসিফ মকবুল নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের বন্দর থানা শাখার সদস্য সচিব পদে রয়েছেন। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু পদ বহাল রাখতে নিজের স্ত্রী ও সন্তানকেও অস্বীকার করছেন এই নেতা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বন্দরের আলীনগরের বাসিন্দা আসিফ মকবুল। তিনি কয়েকবছর পূর্বে বিয়ে করেছেন। তার স্ত্রীর নাম নাদিরা আক্তার। তার কন্যা সন্তানের বয়স সাড়ে তিন বছর বলে জানা গেছে। এসব তথ্য গোপন করে আসিফ বন্দর থানা ছাত্রদলের সদস্যসচিবের পদ বাগিয়ে নিয়েছেন।

গত বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর মহানগর ছাত্রদলের অধীন বন্দর থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়। এই কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয় রাহিদ ইসতিয়াক সাকিবকে। সদস্য সচিব হন আসিফ মকবুল। এছাড়া যুগ্ম আহবায়ক রাইয়্যান মো. হৃদয় হােসেন, আল-আমিন, ফারুক মিয়া, আব্দুল্লাহ আল-মামুন, নাদিম সৈকত হাসান, জোবায়ের হোসেন (রোমান), ফাহিম ভুইয়া ও শহিদুল ইসলাম নাঈম, সদস্য ফাইজুল আলম সিঞ্জান, সাব্বির হোসেন, কাজী শরিফুল ইসলাম সৈকত, সোহান, আমিনুল ইসলাম (বাঁধন), আব্দুল গাফফার, শামিয়া সিফাত মিয়া ও ফয়সাল।

বন্দর থানা ছাত্রদলের একাধিক নেতা বলছেন, বিবাহিত এবং সন্তান থাকার বিষয়টি গোপন রেখে পদ বাগিয়ে নিয়েছেন আসিফ মকবুল। ছাত্রদলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিবাহিত ব্যক্তি ছাত্রদলের কমিটিতে থাকতে পারবে না। সেখানে সদস্যসচিবের মতো কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদে বিবাহিতকে রাখা কোনোভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়।

এদিকে বিবাহিত এবং কন্যা সন্তান থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন বন্দর থানা ছাত্রদলের সদস্য সচিব আসিফ মকবুল। তিনি নিজেকে অবিবাহিত দাবি করে বলেন, ‘বিবাহিত হলে আমি কমিটিতে পদ পেলাম কী করে?’

তবে মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি শাহেদ আহাম্মেদ প্রেস নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘বিবাহিতরা কমিটিতে থাকতে পারবেন না। বন্দর থানার সদস্যসচিবের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ যেহেতু উঠেছে, এ বিষয়ে অনুসন্ধান করা হবে। তথ্য গোপন রেখে কমিটিতে পদ নেওয়ার কোনো প্রমাণ পাওয়া গেলে তাকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হবে।’

সব খবর
রাজনীতি বিভাগের সর্বশেষ